আজ | বৃহঃস্পতিবার, ১ অক্টোবর ২০২০
Search

আ’লীগে দক্ষিণে তাপস, উত্তরে আতিকুলের

২:১৬ অপরাহ্ন, ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৯

chahida-news-1577607415.jpg

আসন্ন ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মেয়র প্রার্থী হিসেবে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে শেখ ফজলে নূর তাপস এবং উত্তর সিটি কর্পোরেশনে আতিকুল ইসলামকে প্রার্থী ঘোষণা করেছে আওয়ামী লীগ। রোববার বেলা ১২টায় ধানমণ্ডিতে দলের সভাপতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন থেকে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তাদের নাম ঘোষণা করেন।

এর আগে, শনিবার রাতে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিত ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের এক সভায় ঢাকার দুই সিটিতে দলের প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়।

ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে উত্তরে মেয়র পদে আতিকুল ইসলামের ওপরই আস্থা রাখলেও দক্ষিণে ফজলে নূর তাপসের হাতে নৌকার বৈঠা তুলে দিয়েছে আওয়ামী লীগ। আতিকুল আগে সর্বশেষ উপ-নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হিসেবে দায়িত্বপালন করছিলেন।

এদিকে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকনের বদলে প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন পেয়েছেন ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য শেখ ফজলে নূর তাপস।

কেন আওয়ামী লীগের প্রতীক নৌকা নিয়ে জয়লাভ করা বর্তমান মেয়র সাঈদ খোকনকে এবার মনোনয়ন দেয়া হলো না, এমন প্রশ্নের জবাবে দলটির সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন,‘আমি এত কিছু বলতে পারব না। আমি শুধু এটুকু বলবো, যারা প্রার্থী ছিল তাদের সবার ব্যাকগ্রাউন্ড, গ্রহণযোগ্যতা, জনপ্রিয়তা এবং কার কতটা জয় পাবার সম্ভাবনা আছে সেসব বিবেচনা করে আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মনোনয়োন বোর্ড সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’

‘কাজেই এখানে কার কী খারাপ, কার কী ভালো এই প্রসঙ্গে আমি যেতে চাই না’, সংবাদ সম্মেলনে বলেন ওবায়দুল কাদের। যারা একসেপটেবল এবং পপুলার তাদেরকেই মনোনয়ন দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এর আগে শনিবার বিএনপি তাদের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করে। ঢাকা দক্ষিণে বিএনপির প্রার্থী ইশরাক হোসেন নাবিল। তিনি প্রয়াত বিএনপি নেতা ও অবিভক্ত ঢাকা সিটির শেষ নির্বাচিত মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে। আর উত্তরে বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। তিনি গত নির্বাচনেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন।

ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ভোট গ্রহণের জন্য ৩০ জানুয়ারি ২০২০ তারিখ নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন। এবার সব কেন্দ্রে ইভিএমে ভোটগ্রহণ করা হবে।

কমিশনের প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে, রিটার্নিং কর্মকর্তা বা সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ ৩১শে ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে ২ জানুয়ারি, ২০২০। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৯ই জানুয়ারি এবং ভোটগ্রহণ করা হবে ৩০শে জানুয়ারি। সূত্র : বিবিসি ও ইউএনবি।

  

আপনার মন্তব্য লিখুন