আজ | মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০
Search

কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মুক্ত

চাহিদা নিউজ ডেস্ক | ১০:২৪ অপরাহ্ন, ১৪ অক্টোবর, ২০২০

chahida-news-1602692672.jpg

১৪ মাস কারাভোগের পর জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি মুক্তি পেয়েছেন। খবর এনডিটিভির। মঙ্গলবার জম্মু ও কাশ্মীর সরকারের মুখপাত্র রোহিত কানসাল এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতিকে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে। কেন্দ্রীয় সরকার জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যকে আলাদা করে দিয়ে তার বিশেষ মর্যাদাকে বিভক্ত করার পরে গত বছরের ৪ আগস্ট মুফতিকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছিল।

এদিকে মুক্তির পরে মেহবুবা এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘এখন আমাদের মনে রাখতে হবে যে, পাঁচ আগস্টে দিল্লি দরবার আমাদের কাছ থেকে অবৈধ ও অগণতান্ত্রিক উপায়ে যা নিয়েছিল, আমরা তা ফিরে চাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি আজ এক বছরেরও বেশি সময় পরে মুক্তি পেয়েছি। এই সময়টিতে অন্ধকার দিনের অন্ধকার রায় প্রতি মুহূর্তে আমার হৃদয় এবং প্রাণকে আক্রমণ করে চলেছে এবং আমি অনুভব করি যে, এটি জম্মু ও কাশ্মীরের সমস্ত লোকের সাথে ঘটেছে। সেদিনের ডাকাতি ও অসততা আমরা কেউ ভুলতে পারি না।’

সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা বলেন, ‘এখন আমাদের সকলকে একটি বক্তব্য রাখতে হবে, দিল্লি দরবার যে পাঁচ আগস্ট অবৈধ উপায়ে আমাদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছিল, তাকে তা ফিরিয়ে নিতে হবে। বরং কাশ্মীরের ইস্যুটির পাশাপাশি, হাজার হাজার মানুষ জম্মু ও কাশ্মীরে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিল, এর সমাধানের জন্য আমাদের আমাদের সংগ্রাম চালিয়ে যেতে হবে। আমি একমত যে, এই পথটি মোটেও সহজ হবে না তবে আমি নিশ্চিত যে আমরা সকলেই উৎসাহ এবং প্রজ্ঞা পেয়েছি, আমরা এই কঠিন পথটি নিতে সক্ষম হবো।’

প্রসঙ্গত, গত বছরের আগস্টে ভারতের পার্লামেন্টে আইন করে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যদা তুলে নেয়ার পর ওই অঞ্চলে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে। সে সময় আটক করা হয়েছিল ফারুক ও ওমর আবদুল্লাহসহ কাশ্মীরের বড় বড় নেতাদের। মেহবুবা মুফতিকেও বন্দি করা হয় সে সময়।

চলতি বছরের শুরুতে ফারুক ও ওমর আবদুল্লাহ বন্দিদশা থেকে মুক্ত হলেও পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (পিডিপি) এই নেত্রীকে ছাড়েনি কাশ্মীর প্রশাসন। গত জুলাইয়ে তিন মাসের জন্য মেহবুবার গৃহবন্দির সময়কাল বাড়িয়েছিল প্রশাসন।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে জননিরাপত্তা আইনে আটক দেখিয়ে মেহবুবা মুফতিকে তার বাড়ি ‘ফেয়ার ভিউ’তে স্থানান্তরিত করা হয়। নিজ বাড়িতেই গৃহবন্দি করে রাখা হয় পিডিপি নেত্রীকে।

  

আপনার মন্তব্য লিখুন