আজ | সোমবার, ৩ আগস্ট ২০২০
Search

অপুর বিরুদ্ধে আইনি নোটিশ

চাহিদা নিউজ ডেস্ক | ৫:২৩ অপরাহ্ন, ১৯ জুলাই, ২০২০

chahida-news-1595157793.jpg
ফাইল ছবি

চেক প্রতারণার অভিযোগে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের বিরুদ্ধে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন বাদশাহ বুলবুল নামে এক ব্যবসায়ী। রোববার ঢাকা জজ কোর্টের আইনজীবী মো. মুনজুর আলমের মাধ্যমে এই নোটিশ পাঠানো হয়।

নোটিশে বলা হয়েছে, ওই ব্যবসায়ীর সঙ্গে অপু বিশ্বাসের সুসম্পর্ক ছিল। সেই সুবাদে প্লট ক্রয়ের কিস্তি পরিশোধ এবং ব্যক্তিগত গাড়ি ও ফ্ল্যাট ক্রয়ের জন্য অপু তার কাছ থেকে ১০ লাখ টাকার ঋণ নেন। গত ৭ জুলাই সেই ঋণ পরিশোধের অংশ হিসেবে ৫ লাখ টাকার একটি চেক দেন অপু বিশ্বাস। তবে অ্যাকাউন্টে প্রয়োজনীয় অর্থ না থাকায় সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্তৃপক্ষ সেটি ফেরত দেয়। বিষয়টি অপুকে জানানো হলে, তিনি কালক্ষেপণ করতে থাকেন এবং এক পর্যায়ে ওই ব্যবসায়ীর সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন।

আইনি নোটিশে অপুকে ৩০ দিনের মধ্যে সব অর্থ পরিশোধের জন্য বলা হয়েছে। তা না হলে অপু বিশ্বাসের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিকে ব্যবসায়ীর এমন অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন অপু বিশ্বাস। তিনি বলেন, ‘আসলে ঘটনাটি তেমন নয়। শাকিবের সঙ্গে ডিভোর্সের পর কিছুটা অর্থকষ্টের মুখে পড়েছিলাম। তখন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, নতুন করে কিছু করার। তখন বগুড়ায় পারিবারিক কিছু সম্পদ বিক্রি করে বাদশাহ বুলবুলের সঙ্গে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে একটি ব্যবসা শুরু করি। কিন্তু কিছুদিন পর তার আচার-আচরণ আমার ভালো লাগছিল না। আমার সঙ্গে তিনি অশ্লীল আচরণও শুরু করেন। তাই বাধ্য হয়েই তার সঙ্গে ব্যবসা গুটিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নেই। তখন থেকেই আমি ব্যবসা থেকে দূরে দূরে থাকতে শুরু করলাম। ঠিকমতো সময় দিতে পারতাম না দেখে বুলবুল সাহেব আমাকে অনুরোধ করেন ব্যবসায়িক কাজের জন্য আমি যেন চেকবইয়ের ২/৩টি পাতা স্বাক্ষর করে রাখি। সেখানে থেকেই ঝামেলার শুরু।’

তিনি আরও বলেন, ‘অনেক আগেই আমি আমার সেই ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছি। কারণ আমার চেক বইয়ের মাঝখানের দুটি পাতা পাচ্ছিলাম না। গত বছর থানায় জিডিও করেছি। সেই চেক নিয়ে কীভাবে আইনি নোটিশ পাঠায়? আমার সম্মান নষ্ট করার জন্যই এমনটা করা হয়েছে। আমি তার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করব।’

  

আপনার মন্তব্য লিখুন