আজ | সোমবার, ৩ আগস্ট ২০২০
Search

মূল্য বৃদ্ধিতে ইতিহাস গড়লো স্বর্ণ

চাহিদা নিউজ ডেস্ক | ৯:৪৩ অপরাহ্ন, ২৮ জুলাই, ২০২০

chahida-news-1595951039.jpg

লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে স্বর্ণের দাম। বিশ্ববাজারে বিক্রি হচ্ছে ইতিহাসের সর্বোচ্চ মূল্যে। গত ৯ বছরে স্বর্ণের বাজার এতোটা অস্থির হয়নি। সোমবার আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি আউন্স (২৮ দশমিক ৩৪৯৫২ গ্রাম) স্বর্ণ বিক্রি হয় ১ হাজার ৯২৩ ডলারে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ১ লাখ ৬২ হাজার ৫০০ টাকা। যা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ রেকর্ড।

এর আগে স্বর্ণের সর্বোচ্চ মূল্য রেকর্ড হয়েছিলো ২০১১ সালে। ওই বছর ৬ সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণ বিক্রি হয় ১ হাজার ৯২১ ডলারে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ১ লাখ ৬২ হাজার ৩৩০ টাকা। এর পর থেকে স্বর্ণের দামের উত্থান-পতন হলেও এই রেকর্ড আর ভাঙ্গেনি। কিন্তু সোমবার স্বর্ণের দামের অতীতের সকল রেকর্ড ভেঙ্গে যায়।

গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি বছরের জানুয়ারিতে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিলো ১ হাজার ৫১৯ ডলার ৫০ সেন্ট। চলমান নভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে সাম্প্রতিক সময়ে খুব কম মানুষই স্বর্ণ কিনতে গিয়েছেন। তারপরও এর দাম বেড়েই চলেছে। স্বর্ণের দাম যে গতিতে বাড়ছে, এতে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে তা ২ হাজার ডলারে পৌঁছে যেতে পারে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

ওই প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, সোমবার স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় সংযুক্ত আরব আমিরাতে প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম নির্ধারণ করা হয় ২১৬ দশমিক ২৫ দিরহাম বা ৫৮ দশমিক ৮৮ মার্কিন ডলার। এর সঙ্গে ৫ শতাংশ ভ্যাট।

দুবাইয়ের একজন স্বর্ণালঙ্কার বিক্রেতা বলেন, এই ধাতুটির মূল্য অনুধাবনের এখনই সবচেয়ে ভালো সময়। গত এক বছরে স্বর্ণের দাম প্রতি আউন্সে প্রায় ৫০০ ডলার বৃদ্ধি পেয়েছে। আর গত ৫ বছরের দামের সঙ্গে পার্থক্য করলে দেখা যাবে- প্রতি আউন্সে বেড়েছে প্রায় ৮০০ ডলার। অর্থাৎ কেউ যদি ৫ বছর আগে স্বর্ণ কিনে এখন বিক্রি করে তাহলে তার লাভ হবে ৮০০ ডলার। সূত্র- গালফ নিউজ।

  

আপনার মন্তব্য লিখুন